নতুনদের জন্য বি-স্কিলড এর সকল কোর্সে ফ্ল্যাট ৩০% ডিস্কাউন্ট! সীমিত সময়ের জন্য!
blog2

আপনি যদি ডিজিটাল মার্কেটিং এ আগ্রহী হয়ে থাকেন তাহলে এই পোস্টটি আপনার জন্য। কারণ, এই পোস্টে ডিজিটাল মার্কেটিং এ ক্যারিয়ার নিয়ে বিস্তারিত জানতে পারবেন। আপনি অবশ্যই এই পোস্টটি শেষ পর্যন্ত পড়বেন, যদি সফল হতে চান।

বর্তমান প্রযুক্তির যুগে সবধরনের কাজকর্মে ডিজিটাল মাধ্যমের ব্যবহার দিন দিন বেড়েই চলছে। ঠিক তেমনি বর্তমান ব্যবসায় ডিজিটাল মার্কেটিং এর চাহিদাও। 

বর্তমানে অন্যান্য মার্কেটিং মেথড এর চেয়ে ডিজিটাল মার্কেটিং মেথড গুলো ১০গুণ বেশি কার্যকরী। কারণ, বর্তমান পৃথিবীর সবাই প্রযুক্তি ও ইন্টারনেট নির্ভর হয়ে গেছে।

তাই ব্যবসায়িক প্রতিষ্ঠান বা কোম্পানি গুলো তাদের পণ্য প্রচারণার ক্ষেত্রে অনলাইন প্রচার মাধ্যম গুলোকে বেশি ব্যবহার করছে। কারণ, কম খরচে টার্গেটেড ক্রেতাদের কাছে খুব সহজেই পণ্য ও সার্ভিস গুলো পৌঁছানো যাচ্ছে।

এজন্য ডিজিটাল মার্কেটারের চাহিদা প্রচুর পরিমানে বেড়ে গিয়েছে। বিডিজবস থেকে শুরু করে লিঙ্কডিন ঘাটলেই চোখে পরে এর হাই-ডিমান্ড। তাই, ক্যারিয়ার হিসেবে ডিজিটাল মার্কেটিং অনেক জনপ্রিয় এখন।  

ডিজিটাল মার্কেটিং কি?

ডিজিটাল ডিভাইস এবং প্রযুক্তি (মোবাইল, কম্পিউটার, ইন্টারনেট ইত্যাদি) ব্যবহার করে কোন পণ্য বা সার্ভিসের প্রচারণা করাই হলো ডিজিটাল মার্কেটিং। যেটাকে অনলাইন মার্কেটিং বা প্রচারণাও বলা হয়। 

ডিজিটাল মার্কেটিং অনেক বড় একটি এরিয়া। আমরা সচরাচর ডিজিটাল মার্কেটিং বলতে ফেইসবুক, ইউটিউব মার্কেটিংকেই বুঝি। কিন্তু সত্যি বলতে এর পরিধি অনেক বিশাল, যেমন… 

একটা বিষয় লক্ষণীয়, আমাদের দেশে ডিজিটাল মার্কেটিং এর যে কোর্স গুলো আছে সেগুলোতে উপরের কতটুকু শেখানো হয় – প্রশ্নটা আপনার কাছে? 

চাকুরী জীবনে অনেক ইন্টারভিউ নেয়ার সৌভাগ্য হয়েছে সেই বাস্তবতায় যা দেখেছি তা ভাষায় প্রকাশ করার মত না। সিভিতে ডিজিটাল মার্কেটিং এক্সপার্ট, স্পেশালিস্ট আরো অনেক কিছুই লেখা হয় কিন্তু ইন্টারভিউ বোর্ডে ডিজিটাল মার্কেটিং নিয়ে কথা বলতে গেলেই ফেসবুক মার্কেটিং ছাড়া আর অন্য কিছু জানে না।

এমনটা হবার কারণ, সস্তায় ডিজিটাল মার্কেটিং এর কোর্স। কোর্স ফি অল্প তাই কোর্স ইন্সট্রাক্টররা কোনরকম ভাবে ডিজিটাল মার্কেটিং এর নামে হাল্কা ধারণা দিয়ে ফেসবুক মার্কেটিং এর কয়েকটি ক্লাস করিয়ে কোর্স শেষ করে দেয়। আর এত অল্প টাকায় কেনই বা আপনাকে দীর্ঘসময় নিয়ে সবকিছু শেখাবে বলেন, সময়ের তো একটা দাম আছে নিশ্চয়। 

তাই, আপনারা যারা কমপ্লিট ডিজিটাল মার্কেটিং শিখতে চান তাদের জন্য বি-স্কিলড নিয়ে এসেছে ৬-মাস মেয়াদি পরিপূর্ণ ডিজিটাল মার্কেটিং লাইভ কোর্স। প্রতি সপ্তাহে ২টি করে মাসে ৮টি এবং ৬ মাসে টোটাল ৪৮টি লাইভ ক্লাস। 

ডিজিটাল মার্কেটিং কোর্সের ডিটেইলস জানতে এখানে ক্লিক করুন।

ডিজিটাল মার্কেটিংয়ের বর্তমানঃ

ইন্টারনেট, ব্যবসার জন্য অশেষ সম্ভাবনার দরজা খুলে দিয়েছে। সামাজিক নেটওয়ার্কিং সাইটগুলো নতুন গ্রাহকদের আকৃষ্ট করার একটি গুরুত্বপূর্ণ মাধ্যমে পরিণত হয়েছে। এমনকি আপনি ডাটা এ্যানালিসিস এর মাধ্যমে সহজেই আপনার পণ্য কে দেখছে, কাদের দেখালে কিনতে আগ্রহী হবে, খুব সহজেই বের করতে পারবেন।

এসইও, সোশ্যাল মিডিয়া মার্কেটিং এবং ইমেল মার্কেটিং পদ্ধতির উচ্চ সাফল্যের হার রয়েছে, কারণ এর মাধ্যমে খুব সহজেই তাদের গ্রাহকের সাথে যোগাযোগের একটি দ্রুত এবং নিরাপদ চ্যানেল তৈরি করা যায়।

আপনি আপনার ওয়েবসাইটে যে সমস্ত ট্র্যাফিক পেতে পারেন তা কার্যকর নাও হতে পারে, তাই আজকের পরিস্থিতিতে ডিজিটাল মার্কেটিংয়ের মাধ্যমে আপনাকে শুধুমাত্র তাদের সাথে যোগাযোগ করতে সাহায্য করে যাদের আপনাকে প্রয়োজন, যার ফলে খুব সহজেই আপনার ব্যবসা প্রসারিত হবে। 

ব্যবসার জন্য, ডিজিটাল মার্কেটিংয়ের কম মূল্যে তাদের বাজেটের উপর ভিত্তি করে তাদের বিপণন কৌশল নির্বাচন করা এবং কম খরচে অধিক দর্শকদের কাছে পৌঁছানো যায়।

এক দশক আগে, পণ্যের প্রচারণা করা কঠিন একটি কাজ ছিল, বিশেষ করে একটি ছোট ব্যবসার জন্য। তাদের অনেক পন্থা অবলম্বন করতে হতো যেখানে সাফল্যের প্রায় কোন আশা ছিল না। কিন্তু বর্তমানে তা সহজ হয়ে গিয়েছে ডিজিটাল মার্কেটিং এর জন্য। খুব সহজেই চাইলে যে কেউ অল্প খরচে ব্যবসার প্রচার করতে পারে। 

অনেক উদ্যোক্তা এবং ছোট ব্যবসার জন্য, মার্কেটিং প্রতিযোগিতামূলক হয়ে উঠেছে। কিন্তু ডিজিটাল মার্কেটিং এর নতুন যুগে প্রবেশ করতে, ছোট ব্যবসা এবং উদ্যোক্তাদের ব্রড-মাইন্ডেড হতে হবে। যুগের সাথে তাল মিলিয়ে চলতে হবে।

২০২২ সাল ডিজিটাল মার্কেটিইংয়ের জন্য ভালো একটি সময়। দুনিয়ার সব ব্যবসায়িরা নতুন নতুন পন্থা অবলম্বন করছে তাদের ক্রেতাদেরকে আকৃষ্ট করার জন্যে। তার জন্যে সবাই ডিজিটাল মার্কেটিং কে বেশি প্রায়োরিটি দিচ্ছে। 

ক্যারিয়ার হিসেবে ডিজিটাল মার্কেটিং… 

লিংকডইন এর মতে, “ডিজিটাল মার্কেটিং স্পেশালিস্ট” পদে ৮,৬০,০০০ টি চাকরির সুযোগ সহ শীর্ষ ১০ ডিমান্ডেবল চাকরির মধ্যে রয়েছে এটি।

যেহেতু ডিজিটাল মার্কেটিংয়ে অনেকগুলি দিক রয়েছে, তাই সংশ্লিষ্ট কাজের পরিধি অনেক বেশি। প্রকৃতপক্ষে, অনেক দক্ষ কর্মীর প্রয়োজন এই সেক্টরে। একটি লিংকডইন সমীক্ষায় মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রের মেট্রো এলাকায় প্রায় ২৩০,০০০ প্রফেশনাল ডিজিটাল মার্কেটারের অভাব খুঁজে পেয়েছে। 

Learn digital marketing

আমাদের দেশের বেশিরভাগ কোম্পানি গুলো ডিজিটাল মার্কেটিংয়ের জন্য আলাদা ডিপার্টমেন্ট খুলছে বা খুলতে বাধ্য হচ্ছে কারণ না হলে তারা অনেকটা পিছিয়ে পড়বে। আপনি বিডিজবস ও লিংকডইনে গেলেই দেখতে পারবেন প্রচুর চাকুরির সুযোগ রয়েছে এই পেশায়। এছাড়াও আপনি যদি ফ্রিল্যান্সিং করতে চান, তাহলে আপনার জন্যে রয়েছে অনেক সুযোগ। শুধু আপনাকে কাংখিত দক্ষতা অর্জন করতে হবে।

একজন ডিজিটাল মার্কেটারের স্যালারি কত?

যদিও এই বিষয়টি সম্পুর্ন নির্ভর করে কোম্পানির উপরে এবং তাদের বিজনেসের আকার এবং ধরণের উপর নির্ভর করে। তবুও দীর্ঘ অভিজ্ঞতা থেকে এখানে স্যালারি ব্রেক-ডাউন করে দেয়ার চেষ্টা করা হয়েছে… 

  • ইন্টার্ন হিসেবে – ১০,০০০ টাকা
  • ডিজিটাল মার্কেটিং এক্সিকিউটিভ – ১৫ থেকে ২৫,০০০ টাকা (১/২ বছরের অভিজ্ঞতা সম্পন্ন)
  • সিনিয়র ডিজিটাল মার্কেটিং এক্সিকিউটিভ – ২৫ থেকে ৩৫,০০০ টাকা (৩/৪ বছরের অভিজ্ঞতা)
  • ডিজিটাল মার্কেটিং স্পেশালিষ্ট – ৩৫ থেকে ৭০,০০০ টাকা (৫/৬ বছরের অভিজ্ঞতা সম্পন্ন)
  • ডিজিটাল মার্কেটিং ম্যানেজার – ৭০ থেকে ১৫০,০০০ টাকা (৮/১০ বছরের অভিজ্ঞতা সম্পন্ন)
  • হেড অফ ডিজিটাল মার্কেটিং – ১০০,০০০ থেকে ২৫০,০০০ টাকা (১০+ বছরের অভিজ্ঞতা সম্পন্ন)
  • ফ্রিল্যান্সার হিসেবে কাজ করলে পার আওয়ার ১০-১০০ ডলার (প্রোফাইলের উপর নির্ভর করে)
  • বাহিরের দেশে একজন ডিজিটাল মার্কেটারের স্যালারি ৬৫,০০০ – ১২০,০০০ ডলার/প্রতি বছর 

অনেক চাকরির সুযোগ আছে এই ফিল্ডে এবং যা আরো কয়েকগুন বাড়বে নিকট ভবিষ্যতে কারণ প্রতিটা বিজনেসকে অনলাইনে আসতেই হবে এবং অনলাইনে তাদেরকে মার্কেটিং করতেই হবে। আর অনলাইনে মার্কেটিং করার জন্য দরকার একজন দক্ষ ডিজিটাল মার্কেটার। 

সেই শূন্যস্থান গুলো পূরণ করার জন্য যথেষ্ট দক্ষ লোক প্রয়োজন, তাই এখনি নিজেকে একজন দক্ষ ডিজিটাল মার্কেটার হিসেবে তৈরি করার উপযুক্ত সময়৷ আমাদের কমপ্লিট ডিজিটাল মার্কেটিং কোর্সটি হতে পারে আপনার একজন সফল ডিজিটাল মার্কেটার হওয়ার চাবিকাঠি।

এছাড়াও, ডিজিটাল মার্কেটিং এর অন্যান্য ফিল্ডেও রয়েছে প্রচুর চাহিদা। কারণ বর্তমান ট্রেন্ড হচ্ছে যেকোন একটি বিষয়ে স্পেশালিষ্টদের চাহিদা আকাশ চুম্বী। তাই একজন কন্টেন্ট রাইটার, বা এসইও স্পেশালিষ্ট, বা সোশ্যাল মিডিয়া মার্কেটার হিসেবেও আপনি আপনার ক্যারিয়ার শুরু করতে পারেন। 

বি-স্কিলড এর প্রতিটি কোর্স কারিকুলাম ওয়ার্ল্ড স্ট্যান্ডার্ড মেইন্টেইন করে তৈরি করা। তাই এই কোর্সগুলো থেকে আপনার পরিপুর্ণ লার্নিং হবে। যা প্রফেশনাল লাইফে আপনাকে সফল হতে সাহায্য করবে। 

সো, হ্যাপি লার্নিং !!!

12 Comments

    Avatar
  • গত দুই বছর ধরে কোনো ইনকাম করতে পারিনাই নাই প্লিজ হেল্প মি

      Reko A. Rahman
    • কেন, কি কি সমস্যা ফেস করেছেন আপনি? – জানান আমাদের।

  • Avatar
  • Ami shikte chai

      Reko A. Rahman
    • কমপ্লিট ডিজিটাল মার্কেটিং শিখতে চাইলে, বি-স্কিলডের লাইভ কোর্সে অংশ নিয়ে শিখতে পারবেন। কোর্স লিংক # https://beskilled.com.bd/courses/digital-marketing-course/

  • Avatar
  • আমি এটা শিখতে আগ্রহী

  • Avatar
  • হ্যা

      Reko A. Rahman
    • ধন্যবাদ তানজিনা, আপনার মতামতের জন্য।

  • Avatar
  • আমি আপনাদের এই কোর্স করতে চাই

      Reko A. Rahman
    • বি-স্কিলডের কমপ্লিট ডিজিটাল মার্কেটিং লাইভ কোর্সে অংশ নিতে ভিজিট করুন # https://beskilled.com.bd/courses/digital-marketing-course/

        Avatar
      • পোস্ট পড়ে ভাল লাগলো কিন্তু আমি RMG সেক্টরে জব করি সো কিভাবে ক্লাস হবে বা আমার সময়ের সাথে আপনার ক্লাসের সময় মিলবে কি না, কোর্স ফি কত, এই গুলো ভাবার বিষয় 🤔

          Reko A. Rahman
        • আপনি যে সেক্টরেই কাজ করেন না কেন, আপনার ইংলিশে একটু ভালো দক্ষতা এবং ইচ্ছাশক্তি থাকলেই ভালো করতে পারবেন যদি সঠিক গাইডলাইন ফলো করেন। আমাদের ক্লাসসমূহ রাত ৯টা – ১০.৩০ মিনিট পর্যন্ত। যদি কখনো কোন ক্লাস মিস করেন তাহলে সেটার ভিডিও লেসন পরে সময় নিয়ে দেখতে পারবেন। আরও বিস্তারিত জানতে আমাদের সাথে চ্যাটে বা কন্ট্যাক্ট ফর্ম ব্যবহার করে যোগাযোগ করুন। ধন্যবাদ

আপনার মতামত দিন

Your email address will not be published.